এপ্রিল ১৪, ২০২৪ ২:০৩ পূর্বাহ্ণ

কারাগারে গেলেন সীতাকুণ্ডে ২ বিএনপি নেতা

সীতাকুণ্ডে নাশকতা মামলায় পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক পৌর কাউন্সিলরসহ দুই বিএনপি নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ভোররাতে উপজেলার পৌরসদরস্থ মহাদেবপুর ও সোনাইছড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন সীতাকুণ্ডের পৌরসদরের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সোবাহানবাগ এলাকার পৌর কাউন্সিলর এ কে এম শামশুল আলম আজাদ ও উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের জোড়ামতল এলাকার যুবদল নেতা আবদুল গণি ওরফে সিজার। গ্রেপ্তার কাউন্সিলর আজাদ সীতাকুণ্ড পৌরসভা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলা বিএনপির সদস্য। আবদুল গণি উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড যুবদল সভাপতি।

সীতাকুণ্ড পুলিশ জানায়, নাশকতাকারীদের অর্থ যোগানদাতা হিসেবে অভিযোগ রয়েছে গ্রেপ্তার পৌর কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। একইভাবে মহাসড়কে নাশকতার ঘটনায় জড়িত থাকাসহ টেরিয়াইল এলাকায় সংঘটিত নাশকতা মামলার এজাহারনামীয় আসামি যুবদল নেতা সিজার। গতকাল ভোররাতে পুলিশের পৃথক অভিযানে পৌরসভার সোবাহানবাগ এলাকার বাসা থেকে কাউন্সিলর আজাদ এবং উপজেলার জোড়ামতল এলাকা থেকে যুবদল নেতা সিজার গ্রেপ্তার হন।

উপজেলা বিএনপির দাবি, গ্রেপ্তার দুই বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে কোনো গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নেই। তাদের দুজনের বিরুদ্ধে পূর্বে যেসব মামলা ছিল তারা সবগুলোতে জামিনে রয়েছেন। পুলিশ পরিকল্পিতভাবে তাদের মিথ্যে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চট্টলার কণ্ঠের সাথে ফোনালাপে জানান , গত ১৩ অক্টোবর ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কে নাশকতার ঘটনায় জড়িত শামশুল আলম আজাদ। এছাড়া সোনাইছড়ি থেকে আটক আবদুল গণি উপজেলার টেরিয়াল এলাকায় নাশকতা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। কাউন্সিলর আজাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তার পরবর্তী তাদের দুজনকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn