মে ২০, ২০২৪ ৩:০৪ পূর্বাহ্ণ

কাপাসগোলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক ৩ ঘন্টা অবরুদ্ধ

  • জামাল হোসে,  সিনিয়র রিপোর্টার  চট্টগ্রাম কণ্ঠ।

ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে চট্টগ্রাম নগরের চকবাজারের কাপাসগোলা সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আলাউদ্দিনকে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকেরা। আজ রোববার সকাল ১০টার দিকে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে ওই শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখে। পাশাপাশি বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করে তারা। তিন ঘণ্টা পর পুলিশ পাহারায় বিদ্যালয় থেকে বের হন ওই শিক্ষক।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অভিযোগ, বিভিন্ন সময়ে শিক্ষক মো. আলাউদ্দিন ছাত্রীদের যৌন নিপীড়ন করেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে সিটি করপোরেশনে অভিযোগ দিলেও তাঁকে সরানো হয়নি। সর্বশেষ গতকাল শনিবার এক ছাত্রীকে হেনস্তা করেন তিনি।সরেজমিন দেখা যায়, বেলা প্রায় দেড়টা পর্যন্ত ওই শিক্ষক বিদ্যালয়ের ভেতর অবরুদ্ধ ছিলেন। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অবস্থান করছিলেন। পরে পুলিশ ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলেন। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বিদ্যালয়ের মূল ফটকের বাইরে নিয়ে যান। আর সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে ওই শিক্ষককে বের করে দেওয়া হয়। এ সময় শতাধিক শিক্ষার্থী ওই শিক্ষকের অপসারণ চেয়ে স্লোগান দেয়।
এর আগে গতকাল সিটি করপোরেশনের মেয়র বরাবর ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন অভিভাবকেরা। এতে বলা হয়, প্রধান শিক্ষক মো. আলাউদ্দিন বিভিন্ন সময়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছেন।
অভিযোগের বিষয়ে প্রধান শিক্ষক মো. আলাউদ্দিন চট্রলার কণ্ঠকে বলেন, ‘যৌন নিপীড়নের কোনো ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত নই। আমাকে প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে সরানোর জন্য ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের কিছু শিক্ষকও এসবের সঙ্গে জড়িত। তাঁরাই শিক্ষার্থীদের উসকে দিচ্ছেন। ফলে মেয়র মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব।’

জানতে চাইলে ১৬ নম্বর চকবাজার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নুর মোস্তফা টিনু চট্টলার কণ্ঠকে বলেন, সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। প্রধান শিক্ষককে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn