এপ্রিল ১৪, ২০২৪ ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

স্ত্রী খুনের মামলায় স্বামী ও ভগ্নিপতি গ্রেপ্তার

নগরের হালিশহর থানার ফইল্যাতলী বাজার এলাকায় রাবেয়া আক্তার নামে এক গৃহবধূকে পারিবারিক কলহে খুনের ঘটনায় তার স্বামী মো. জামিল (২৪) ও ভগ্নিপতি মো. মোস্তফাকে(২২) গ্রেফতার করা হয়েছে।

জামিল কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী থানার দক্ষিণ হাটি করপাশা সুলু বাড়ির শাহ আমিনের ছেলে ও মোস্তফা একই থানার দামপাড়া সুন্দরবনের মোড়ে রফিকের বাড়ির মো. শফিকুল ইসলামের ছেলে।

হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি নগরের হালিশহর এ-ব্লক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে হালিশহর থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) পশ্চিম বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) জসীম উদ্দীন।

তিনি জানান, গ্রেফতার জামিলের সঙ্গে রাবেয়ার বিয়ে হয়েছিল এক বছর আগে। রাবেয়ার প্রথম সংসারে দুই কন্যা রয়েছে।

পরিবারের নানা বিষয় নিয়ে রাবেয়ার সঙ্গে জামিলের বনিবনা না হওয়ায় কলহ হয়। সেটা নিষ্পত্তির জন্য রাবেয়ার বাবা জামিলসহ নিকট আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে বৈঠক করেন।

একসময় রাবেয়া গার্মেন্টেসে চাকরি করতেন। স্বামী প্রতিনিয়ত সন্দেহ করায় ২ মাস আগে চাকরি ছেড়ে দেন।

তিনি জানান, সংসারের সচ্ছলতার জন্য তার বাবার চায়ের দোকানের পাশে রাস্তায় পিঠা বিক্রি করতেন রাবেয়া। যেটা তার স্বামী জামিল পছন্দ করতেন না। গত ১০ জানুয়ারি জামিল এনজিও থেকে ঋণ নেওয়ার জন্য একটি ফরমে স্বাক্ষর দিতে বললে রাবেয়া অস্বীকৃতি জানান। এতে স্বামী ও স্ত্রী তর্কে লিপ্ত হন। গত ১৪ জানুয়ারি দুপুরে জামিল কাজ শেষে হালিশহর পাবলিক স্কুলের মোড়ে মোস্তফা মিলে ছুরি দিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযাযী একই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে জামিল ছুরি নিয়ে তার বাসায় ঢোকে। জামিলের শয়নকক্ষের পাশের কক্ষে ঢুকে মোস্তফা। জামিল ঘরে ঢুকে তার মেয়ে মিম আক্তার জান্নাতকে ঘরের ভেতরে দেখতে পেয়ে বাইরে যেতে বলে। জান্নাত বাসা থেকে বের হয়ে তার নানার চা-পানের দোকানে যায়। সে বাবা ছুরি নিয়ে ঘরে ঢুকেছে ও ঘর থেকে বের করে দিয়েছে বলে নানাকে জানায়।

রাবেয়া নাশতার জন্য রান্না ঘরে ঢুকলে মোস্তফা ঝাপটে ধরে ফেলে জানিয়ে জসীম উদ্দীন জানান, জামিল রাবেয়া গলায় ও শরীরে ছুরিকাঘাতে করে। রাবেয়া চিৎকার করলে মোস্তফা ও মো. জামিলের হাত থেকে ছুরি কেড়ে নিয়ে গলায় কয়েকবার পোচ মারে। তখন রাবেয়া দৌড়ে বাবার দোকানের সামনে রাস্তায় পড়ে যায়। জামিল ও মোস্তফা দৌড়ে দেয়াল টপকিয়ে খালপাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে হালিশহর পুলিশ কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী থানা থেকে জামিলকে ও নগরের হালিশহর এলাকা থেকে মোস্তফাকে গ্রেফতার করে।

গত ১৪ জানুয়ারি নগরের হালিশহর থানার ফইল্যাতলী বাজার এলাকায় রাবেয়া আক্তার খুন হয়। এ ঘটনায় রাবেয়ার বাবা মো. আব্দুল মালেক বাদী হয়ে হালিশহর থানায় মামলা করেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn