ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪ ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশী ইন্টারনেট ব্যবহার করছে ৪৩% মানুষ

 

দেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন ৪৩ দশমিক ৬ শতাংশ মানুষ। যা ২০১৩ সালে ছিলো মাত্র ৪ দশমিক ৮ শতাংশ। সেই হিসেবে দশ বছরের ব্যবধানে ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়েছে প্রায় ৯ গুণ।

সোমবার (১৭ জুলাই) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিসংখ্যান ভবনে এক অনুষ্ঠানে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) ব্যবহার জরিপ-২০২৩ শীর্ষক প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরেন।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিটি বিভাগের সচিব সামসুল আরেফিন, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব শাহনাজ আরেফিন এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক উত্তম কুমার। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) মহাপরিচালক মো. মতিয়ার রহমান। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রকল্প পরিচালক সৈয়দা মারুফা সাকি।

 

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, খানা পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সবচেয়ে বেশি ঢাকা বিভাগে ৫৯ দশমিক শূন্য শতাংশ। সবচেয়ে কম বরিশাল ও রংপুর বিভাগে ২৭ দশমিক ৩ শতাংশ। যেখানে জাতীয় পর্যায়ে ৪৩ দশমিক ৬ শতাংশ। খানা পর্যায়ে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী সবচেয়ে বেশি খুলনা বিভাগে ৯৯ দশমিক ২ শতাংশ, সবচেয়ে কম সিলেট বিভাগে ৯২ দশমিক ৪ শতাংশ। কম্পিউটার ব্যবহারকারী সবচেয়ে বেশি ঢাকা বিভাগে ১৪ দশমিক ৬ শতাংশ। সবচেয়ে কম সিলেট বিভাগে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ।

 

ব্যক্তি পর্যায়ের তথ্য দিয়ে বলা হয়েছে- ব্যক্তি পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর হার ৪৪ দশমিক ৫ শতাংশ, মোবাইল ফোন ৯০ দশমিক ৫ শতাংশ, কম্পিউটার ৭ দশমিক ৯ শতাংশ এবং নিজস্ব মোবাইল ফোন আছে এমন ব্যক্তির হার ৬৩ দশমিক ৮ শতাংশ।

 

২০১৩, ২০২২ ও ২০২৩ সালের ডেটা বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ব্যক্তির হার ২০১৩ সালে ছিল ৬ দশমিক ৭ শতাংশ। যেটা বেড়ে ২০২২ সালে ৩৮ দশমিক ৯ শতাংশ হয়েছে এবং ২০২৩ সালে হয়েছে ৪৪ দশমিক ৫ শতাংশ। মোবাইল ব্যবহারকারীর হার ২০১৩ সালে ছিল ৮১ দশমিক ৭ শতাংশ। যেটা বেড়ে ২০২২ সালে ৮৯ দশমিক ৯ শতাংশ এবং ২০২৩ সালে হয়েছে ৯০ দশমিক ৫ শতাংশ। কম্পিউটার ব্যবহারকারীর হার ২০১৩ সালে ছিল ৫ দশমিক ৬ শতাংশ। যেটা বেড়ে ২০২২ সালে ৭ দশমিক ৪ শতাংশ হয়েছে। ২০২৩ সালে হয়েছে ৭ দশমিক ৯ শতাংশ।

 

এই তথ্য সংগ্রহে ৩০ হাজার ৮১৬টি খানা এবং এক লাখ ১২ হাজার ৬০০ মানুষের ওপর জরিপ চালিয়েছে সরকারি এই সংস্থা। জরিপের প্রতিবেদন থেকে দেখা যায়, আইসিটি ব্যবহারে গত দশ বছরে ব্যক্তিপর্যায়ে মোবাইলফোন ব্যবহার বেড়েছে। গৃহস্থালি পর্যায়ে আইসিটির ব্যবহার ব্যক্তিপর্যায়ের মতোই। জরিপের তথ্যানুযায়ী, দিনে অন্তত একবার মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহারকারী পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। এছাড়া মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহারে শহরের মানুষ এগিয়ে রয়েছে। অবশ্য মোবাইল ব্যবহারে শহর আর গ্রামের পার্থক্য খুব বেশি নয়। নিজের বাসায় ইন্টারনেট ব্যবহারের হার বেশি।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn