এপ্রিল ১৭, ২০২৪ ১২:৩৯ অপরাহ্ণ

ওমরাহ ভিসার মেয়াদ বাড়িয়ে ৯০ দিন করা হয়েছে

চট্রলার কণ্ঠ নিউজ।

সৌদি আরবের পবিত্র ওমরাহ ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৯০ দিন করা হয়েছে। এছাড়া সফরকালে ট্রানজিটে গিয়েও বাংলাদেশিরা সৌদি আরবে ওমরাহ হজ পালন করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

বুধবার (২৩ আগস্ট) সচিবালয়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে রাজকীয় সৌদি আরব সরকারের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী তৌফিক বিন ফাউজান আল রাবিয়াহের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক সভা শেষে তিনি এ কথা জানান।

সফরকালে ট্রানজিটে ওমরাহ হজ পালনের সুবিধা নিয়ে মন্ত্রী বলেন, “শুধু সৌদি এবং ফ্লাইনাস এয়ারলাইন্সের যাত্রীরা এ সুবিধার আওতায় আসবেন।”

ধর্মমন্ত্রী জানান, সৌদি সরকার ওমরাহ ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৯০ দিন করেছে। এই তিন মাসের ভিসায় গিয়েও দেশটিতে ঘুরতে পারবেন বাংলাদেশি যাত্রীরা।

এর আগে  মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) রাতে ঢাকায় পৌঁছান সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী ড. তাওফিক আল-রাবিয়া।

সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন সালমানের ভিশন ২০৩০ বাস্তবায়নের লক্ষ্যেও তিনি এ সফর করছেন।

সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী ঢাকা সফরকালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

এছাড়া তিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর সঙ্গে বৈঠক করবেন।

হজ ও ওমরাহ সংক্রান্ত অ্যাপস নুসুক নিয়ে ঢাকার বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে একটি মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে ঢাকার সৌদি দূতাবাস। দেশের হজ এজেন্সিগুলোর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠেয় মেলাটি উদ্বোধন করবেন সৌদি হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী।

এসময় তৌফিক আল-রাবিয়াহ বলেন, “বাংলাদেশিদের সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনায় স্বাগত জানাতে আমরা এখানে এসেছি। ওমরাহ ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৯০ দিন করা হয়েছে। যে কেউ মক্কা, মদিনাসহ বিভিন্ন শহর ঘুরতে পারবেন। সৌদির উন্নয়নে সহায়তা করছেন বাংলাদেশিরা। ২৮ লাখ বাংলাদেশি বর্তমানে সৌদি আরবে কাজ করছেন।”

এছাড়াও তিনি জানান, তিনি প্রতিটি বাংলাদেশি নাগরিককে নিশ্চিত করতে চান, তারা ওমরাহ করতে গিয়ে সেখানে যেকোনো জায়গায় যেতে পারবেন। এখন নারীরাও মাহরাম ছাড়া মক্কা ও মদিনায় যেতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, “সৌদি আরবে বাস করা যেকোনো বাংলাদেশি তাদের আত্মীয়-স্বজনদের ভিজিট ভিসায় সৌদি আরবে আমন্ত্রণ জানাতে পারবেন। এছাড়াও হজের খরচ কমানো নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।”

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn