এপ্রিল ১৭, ২০২৪ ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রামের খাগড়াছড়িতে প্রেমিকার ওড়নায় প্রেমিকের আত্মহত্যা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি | সোমবার , ১১ সেপ্টেম্বর।

খাগড়াছড়িতে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া এক তরুণের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় এক তরুণীকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালের পাঠানো হয়েছে। গতকাল রোববার জেলার গুইমারা উপজেলার সিন্দুকছড়ির মুড়া পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত তবেন জয় ত্রিপুরা মুরাপাড়ার বাসিন্দা নবকেশ ত্রিপুরার ছেলে। তিনি মাটিরাঙ্গা সরকারি ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

গুইমারা থানার ওসি রাজীব চন্দ্র কর বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তবেন ও ওই তরুণীর প্রেমের সর্ম্পক ছিল। বিষয়টি জানাজানি হলে কোনো পরিবারই তাদের এ সম্পর্ক মেনে নিতে সম্মত হয়নি। রোববার সকালের দিকে বিদ্যালয়ের পাশের জঙ্গলে আম গাছের সঙ্গে প্রেমিকার ওড়নায় গলায় ফাঁস দেয় ওই যুগল। এ সময় প্রেমিক মারা গেলেও ওড়না ছিঁড়ে মাটিতে পড়ে যায় প্রেমিকা। আশপাশের লোকজন গুরুতর অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে মহালছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙে ভর্তি করে। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহত প্রেমিকের মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে জানায় পুলিশ।

এদিকে খাগড়াছড়ি সদরের বাস টার্মিনাল এলাকায় আব্দুল মোতালেব (২৯) নামে এক পরিবহন শ্রমিকের গলায় ফাঁস দেওয়া লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এছাড়া পারিবারিক কলহের জেরে জেলা সদরের কমলছড়িতে পদ্মাদেবী ত্রিপুরা (২০) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থী বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ নিশ্চিত করে।

প্রসঙ্গত, গতকাল বিশ্বজুড়ে পালিত হয়েছে বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। ‘কর্মের মাধ্যমে আশা তৈরি করো’– প্রতিপাদ্যে বাংলাদেশেও নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করা হয়। বিশ্বজুড়ে আত্মহত্যা প্রতিরোধে ২০০৩ সাল থেকে প্রতি বছরের ১০ সেপ্টেম্বর বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পারিবারিক নির্যাতন, কলহ, শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন, পরীক্ষা ও প্রেমে ব্যর্থতা, দারিদ্র্য, বেকারত্ব, প্রাত্যহিক জীবনের অস্থিরতা, নৈতিক অবক্ষয় এবং মাদক ইত্যাদি কারণে মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn