মে ২০, ২০২৪ ৩:০২ পূর্বাহ্ণ

চবি ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে তিনজন আহত

চবি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ৩ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টায় চবির শাহজালাল ও শাহ আমানত হলে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।

বিবাদে জড়ানো পক্ষ দু’টি হলো শাখা ছাত্রলীগের বগিভিত্তিক উপগ্রুপ চুজ ফ্রেন্ডস উইথ কেয়ার (সিএফসি) ও সিক্সটি নাইন।

জানা গেছে, চবি’র ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের র‍্যাগ ডে উদযাপনের সময় সিএফসি ও সিক্সটি নাইন গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় যা একপর্যায়ে সংঘর্ষে রূপ নেয়।

সংঘর্ষ চলাকালে সিএফসি’র অনুসারীরা শাহ আমানত হলে এবং সিক্সটি নাইনের অনুসারীরা শাহজালাল হলে অবস্থান নিয়ে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় জড়ায়। পরে প্রক্টরিয়াল বডি পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং সিএফসি গ্রুপের অনুসারী সাদাফ খান চট্টলার কন্ঠকে  বলেন, “সিক্সটি নাইনের অনুসারী বাংলা বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের আকিব জাবেদ মদ্যপ অবস্থায় হঠাৎ এসে আমাদের ছেলেদের সঙ্গে ঝামেলায় জড়ায়। সে আগেও সংঘর্ষের সময় আমাদের একজনকে কুপিয়ে ছিল। মূলত তার মাতলামির কারণেই দুই পক্ষের মধ্যে ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছে। আমাদের তিনজন আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আছে।”

তবে তিনি আহতদের নাম পরিচয় বলতে পারেননি।

শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সিক্সটি নাইন গ্রুপের অনুসারী সাইদুল ইসলাম সায়েদ চট্রলার কণ্ঠকে বলেন, “দেড় থেকে দুই মাস আগে সিএফসি’র সঙ্গে আমাদের একটা সংঘর্ষ হয়। সেই ঘটনার জের ধরে আজকে হঠাৎ তাদের উশৃংখল কিছু ছেলে এসে আমাদের ছেলেদের সঙ্গে তর্কে জড়ায়। পরে দুই পক্ষের সিনিয়ররা বসে বিষয়টি সমাধান করে।”

সংঘর্ষের বিষয়ে জানতে চাইলে চবি প্রক্টর ড. নূরুল আজিম সিকদার বলেন, “বিকেলে কথা কাটাকাটির জেরে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে আসি। পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে উভয় পক্ষকে হলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।”

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn