ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪ ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রামে ২ মামলায় বিএনপি’র চল্লিশ কর্মী গ্রেফতার

আজহার উদ্দিন।

চট্টগ্রামে বিএনপির ডাকা হরতালে গাড়ি ভাঙচুর ও নাশকতা অভিযোগ দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাগুলোকে গায়েবি বলছে বিএনপি। তাদের দাবি মামলাগুলোতে ৪০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সোমবার নগরের আকবরশাহ ও পাহাড়তলী থানায় পৃথক মামলা দুইটি দায়ের করেছে পুলিশ।

আকবর শাহ থানার মামলায় নগর বিএনপির সদস্য মঞ্জুর আলম, নগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি ও সহ-সভাপতি শাহেদ আকবরসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে নগরের কর্নেলহাট ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঝটিকা মিছিল করে গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ আনা হয়েছে।

nagad

আকবর শাহ থানার ওসি ওয়ালী উদ্দিন আকবর চট্রলার  কণ্ঠকে  বলেন, হরতাল চলাকালে ঝটিকা মিছিল বের করে সড়কে চলাচলরত গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই তিনজনসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

এদিকে নগরের পাহাড়তলী থানায় হরতাল চলাকালে গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে ২৯ জনের নাম উল্লেখসহ আরও একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পাহাড়তলী থানার ওসি জহির উদ্দিন বলেন, আমরা ২৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছি। সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে ভাঙচুরের সঙ্গে সরাসরি যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নগর বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বে থাকা নেতা ইদ্রিস আলী বলেন, আকবর শাহ ও পাহাড়তলী থানায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দুটি গায়েবি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। নগরীতে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের ঘরে ঘরে গিয়ে পুলিশ তল্লাশি করেছে। ৪০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিএনপির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গ্রেপ্তার নেতাকর্মীদের মধ্যে রয়েছে-কোতোয়ালি থানা শ্রমিক দলের সভাপতি সালেহ আহমদ, নগর যুবদল নেতা কুইন্টাল রিভেরিয়ো, বায়েজিদ থানা বিএনপি নেতা ফয়েজ আহমেদ, আমিন শিল্পাঞ্চলের সালামত আলী, ফিরিঙ্গি বাজার ওয়ার্ড বিএনপির সহ-সভাপতি সোহেল ওসমান মামুন, সাবেক ছাত্রদল নেতা আরশে আজিম আরিফ, পতেঙ্গা থানা বিএনপি নেতা কাজী ইসমাইল, মো. ইকবাল ও কাজী জিয়া উদ্দিন সোহেল, রামপুর ওয়ার্ড যুবদল নেতা জাহাঙ্গীর আলম, পাথরঘাটা ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা জসিম উদ্দিন, পাথরঘাটা ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মো. মহিউদ্দিন, বাকলিয়া থানা হোটেল-রেস্টুরেন্ট শ্রমিক দলের সভাপতি আবুল কালাম, বকশিরহাট ওয়ার্ড যুবদল নেতা সেলিম খান, আনোয়ার হোসেন মানিক ও ফয়সাল হোসেন মুন্না, ৩৮নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির অর্থ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন, বাগমনিরাম ওয়ার্ড বিএনপির সহসভাপতি মো. নাছির উদ্দীন, আলকরন ওয়ার্ড যুবদল নেতা মো. ফারুক, দক্ষিণ বাকলিয়ার বিএনপি কর্মী জামাল উদ্দিন, আক্তার হোসেন, মো. রুবেল, মো. মানিক, পশ্চিম বাকলিয়ার মো. ফয়সাল, সাজ্জাদ হোসেন, পূর্ব বাকলিয়ার আনোয়ার হোসেন এবং মো. ইউনুস।

 

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn