ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪ ২:২৮ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রামে কোন আসনে প্রার্থীদের জামানত কত

ওয়াসিম জাফর

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর প্রার্থীরা এখন আসন অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করবেন। মনোনয়ন ফরমের সাথে প্রার্থীদের সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডি সংগ্রহ করতে হবে।

গতকাল চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, প্রার্থীদের মনোনয়ন ফরমের সাথে ভোটারদের ছবিসহ সিডি সরবরাহের জন্য প্রস্তুত করে রেখেছেন নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তারা।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী চট্টলার কণ্ঠকে  বলেন, প্রতিটি আসনের প্রার্থীদের জামানতের পরিমাণ ২০ হাজার টাকা। ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির মূল্য ভোটার অনুযায়ী।

নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রত্যেক প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে মনোনয়ন ফরমের সাথে ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডি গ্রহণ করতে হবে। এজন্য মনোনয়নপত্র গ্রহণের সময় নির্বাচনী এলাকার আওতাধীন প্রতিটি ইউনিয়নের জন্য ৫০০ টাকা এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন বা ক্যান্টমেন্ট বোর্ড বা পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের জন্য ৫০০ টাকা হারে ট্রেজারি চালান বা পে অর্ডারের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। চালানের কপি সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসে প্রদান করে সিডি সংগ্রহ করতে হবে।

চট্টগ্রাম–১ মীরসরাই আসনের প্রার্থীর জামানত দিতে হবে ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১৭ হাজার।

চট্টগ্রাম–২ (ফটিকছড়ি) আসনের প্রার্থীর জামানতের পরিমাণ ২০ হাজার এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১৮ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–৩ (সন্দ্বীপ) আসনের প্রার্থীর জামানতের পরিমাণ ২০ হাজার এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১২ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–৪ (সীতাকুণ্ড এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৯ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ড) আসনের প্রার্থীর জামানতের পরিমাণ ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১০ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–৫ (হাটহাজারী এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড) আসনের প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১৩ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–৬ (রাউজান) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১১ হাজার ৫০০ টাকা।

চট্টগ্রাম–৭ (রাঙ্গুনিয়া এবং বোয়ালখালীর শ্রীপুর ও খরণদ্বীপ ইউনিয়ন) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১২ হাজার ৫০০ টাকা।

চট্টগ্রাম–৮ (বোয়ালখালী উপজেলা, শ্রীপুর–খরনদ্বীপ ইউনিয়ন ব্যতীত এবং চসিকের ৩,৪,৫,৬,৭ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১১ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–৯ (কোতোয়ালী–বাকলিয়া–চকবাজার থানাধীন ১৫ থেকে ২৩ নম্বর ওয়ার্ড এবং ৩১ থেকে ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ৭ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১০ (ডবলমুরিং–খুলশী থানাধীন ৮, ১১, ১২, ১৩, ১৪, ২৪, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ৪ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১১ (বন্দর–পতেঙ্গা থানাধীন চসিক এর ২৭ থেকে ৩০ ও ৩৬ থেকে ৪১ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে প্রার্থীদের জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির মূল্য ৫ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১২ (পটিয়া উপজেলা) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির মূল্য ১৩ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১৩ (আনোয়ারা ও কর্ণফুলী উপজেলা) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ৮ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১৪ (চন্দনাইশ উপজেলা এবং সাতকানিয়া উপজেলার কেওচিয়া, কালিয়াইশ, বাজালিয়া, ধর্মপুর ও পুরানগড় ইউনিয়ন) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১৬ হাজার টাকা।

চট্টগ্রাম–১৫ (লোহাগাড়া উপজেলা ও সাতকানিয়া উপজেলা (কেওচিয়া, কালিয়াইশ,বাজালিয়া, ধর্মপুর, পুরানগড় ও খাগরিয়া ইউনিয়ন ব্যতীত)

আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১৪ হাজার ৫০০ টাকা।

চট্টগ্রাম–১৬ (বাঁশখালী উপজেলা ) আসনে প্রার্থীর জামানত ২০ হাজার টাকা এবং ছবিসহ ভোটার তালিকার সিডির জন্য দিতে হবে ১১ হাজার ৫০০ টাকা।

জামানতের ২০ হাজার টাকা বরাবরে রিটার্নিং অফিসার, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বরাবরে পে–অর্ডার করতে হবে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn